অবরুদ্ধ পৃথিবীঃদুই

ভাইরাস সুনামির মার্কিন ইতিহাস

২৬শে মার্চ Live Science (Science News Website) যুক্তরাষ্ট্রকে করোনা মহামারির নতুন কেন্দ্রভুমি হিসেবে চিহ্নিত করে সংবাদ পরিবেশন করেছিল। সংবাদের শিরোনাম, ‘The United States of America has become the new epicenter of the coronavirus pandemic’. কারণ এই দিনই আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা চীন, ইটালিকে ছাড়িয়ে যাওয়ায় বিপর্যস্ত দেশ হিসেবে আমেরিকার প্রথম স্থান অধিকার। এ সম্পর্কে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অবশ্য বলেছিলেন, চীনে এতসংখ্যক মানুষক...

এক

করোনা ভাইরাস কোভিড ১৯      

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড জে ট্রাম্প করোনা ভাইরাসের হ্যাপা সামলাতে গিয়ে বলেছেন, ‘I am a wartime President’. আমি এক যুদ্ধকালীন সময়ের প্রেসিডেন্ট। তাঁর বক্তব্যের রহস্যময় গভীরতা নিয়ে দেশের সমালোচক-বিশ্লেষকদের ব্যাখ্যার ঝড় মন্তব্যের পরেই শুরু হয়ে গিয়েছে। আরও চলবে যতক্ষণ পর্যন্ত এর শেষ রেশটুকু নিয়ে নানা দৃষ্টিকোণ থেকে তুলোধুনো আলোচনা করা যায়। কারণ তিনি বিশ্বের সবচাইতে শক্তিশালী দেশের রাষ্ট্রপ্রধান। তাঁর চারপাশে দৃশ্যমান এবং অদৃশ্য এমন অনেক কিছুই ঘনিয়ে উঠত...

আধুনিক বিজ্ঞানে নিত্যনতুন আবিষ্কারের বিস্ময়কর তালিকা যত দীর্ঘ হচ্ছে, মানবজীবনের জটিলতা চারদিক থেকে ততই ঘনিয়ে উঠছে জট পাকিয়ে। তার লাইফ স্টাইলে যেমন নতুন নতুন রূপান্তর, তেমনি চিকিৎসা বিজ্ঞানের ব্যাখ্যাতেও নতুনরূপে জটিল রোগের প্রাদুর্ভাব। আপাতত করোনা ভাইরাস বিশ্বজীবনে আলোচনার মধ্যমণি। বহু বছর পর্যন্ত পশু আর পাখিদের মধ্যে এটি সীমাবদ্ধ ছিল। প্রথমবার মানবদেহ(শিশুরা)আক্রান্ত হয় ১৯৬৫ সালে। এই ভাইরাসের কারণে শ্বাসযন্ত্রে প্রদাহ সৃষ্টি হয়। জ্বর, সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, মাথাধরা, বমি ইত্যাদি উপসর্গ...

ইংরেজ কবি জন মিলটনের সেই বিখ্যাত উক্তি -‘The childhood shows the man/As morning shows the day’(John Milton, Paradise Regained), যুগে যুগে দৃষ্টান্ত হয়েছে বিশ্বের অজস্র খ্যাতিমান মানুষের জীবনপরম্পরা ঘটনায়। বাংলাদেশের স্থপতি ও প্রথম রাষ্ট্রপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জীবনেও কবির এই প্রবাদ উক্তিটি শতভাগ সত্য। একদিন মানবপ্রেমিক মানুষটি তাঁর মাতৃভূমি আর জনমানুষের ভবিষ্যত রচনা করবেন আকর্ষণীয় রাজনৈতিক নেতৃত্ব দিয়ে, তার ইঙ্গিত ছেলেবেলাকার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যেই আভাস ফেলেছিল বারবার। পরবর্তীতে তিনি প্রতিনিধি...

ব্রিটেনের জাতীয় ইলেকশনে বরিস জনসন রেকর্ড মাত্রায় আসন পেয়ে কেন বিজয়ী হলেন এবং কী কারণেই বা বিরোধী দলের নেতা জেরিমি করবিনের ভরাডুবি হলো, নির্বাচনের আগেই তার কারণগুলো অনেকটা স্পষ্ট হয়েছিল। ব্রেক্সিট বিতর্ক নিয়ে কনজারভেটিভ বনাম লেবার পার্টিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর সংসদ উত্তপ্ত করার পরিস্থিতি থেকেও বোঝা গিয়েছিল, ২০১৬-এর গণভোটের ফলাফল উপেক্ষা করে নতুন করে গণভোটের দাবী, কিংবা এ সম্পর্কে লেবার পার্টির অবস্থান স্পষ্ট না করার পলিসি, তাদের জন্য কোনো সুখবর বয়ে আনবে না। পুরো সাড়ে তিন বছর ধরে পার্লামেন্টে...

 শেষ হল ব্রিটিশ জনতার বহু প্রতীক্ষিত ব্রেকজিট সফল করার পদক্ষেপ নিয়ে। ব্রেকজিট মানে (Britain+ Exit) ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের বাঁধন ছিঁড়ে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে আসার আইনি প্রক্রিয়া। এই বাঁধন ছেড়া যে কত কঠিন কাজ ছিল,  ২০১৬-য় প্রক্রিয়া শুরু হতেই বোঝা গিয়েছিল। কারণ ব্রেকজিট বিতর্কে পার্লোমেন্টের অভ্যন্তরীন দ্বন্দ্ব যেমন চরম পর্যায়ে পৌঁছে যায়, তেমনি দরকষাকষিতে EU-এর নেতাদের সঙ্গেও সৃষ্টি হয় জটিল পরিস্থিতির।

তবে ব্রেকজিটের শক্তিশালি প্রতিপক্ষ ছিল House of Commons-এর বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সাংসদরাই। যাঁরা যুক...

  

প্রকৃতি কন্যা কঙ্গো অরণ্য বা কঙ্গোলিস, সেন্ট্রাল আফ্রিকার কঙ্গো রিভার বেসিনের নিম্নভূমি রেইনফরেস্ট।  আদিম মানুষের পূর্বপুরুষ হিসেবে যে বাঁদরগোষ্ঠীকে চিহ্নিত করা হয়, একুশ শতকে তাদের অস্তিত্ব কেবল এই অরণ্যেই টিকে আছে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম নদী কঙ্গো এবং আরও অনেকগুলো উপনদী ছুঁয়ে কঙ্গোলিস বিস্তৃত হয়েছে সেন্ট্রাল আফ্রিকার ছয়টি রাজ্যসীমানায়। এগুলো হলো ক্যামেরুন, ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অফ দ্য কঙ্গো, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, রিপাবলিক অফ দ্য কঙ্গো, ইকুয়াটোরিয়াল গিনিয়া ও গ্যাবন। বিশ্বের দ্বিত...

ভোরের দিকে হঠাৎই জোরে এক পশলা বৃষ্টি হওয়ায় ঘুমটা বেশ গাঢ় হয়ে উঠেছিল নিখিলেশের। আর তখনই আবারও সেই স্বপ্নটা দেখলেন। এক অচেনা তরুণীর হাত ধরে ছোট্ট নদীর তীর ছুঁয়ে ছুটতে ছুটতে সামনের অফুরন্ত সাগরের ওপর দিয়ে ভেসে চলেছেন অবাধে। মাঝখানে আর কোনো ঘটনা নেই। আর কোনো বাক্যালাপ নেই। আর কোনো দৃশ্যপাটও নেই। শুধুই সংক্ষিপ্ত সময়ের ওই ছোট্ট এক টুকরো ঘটনা ছাড়া। তিনবার স্বপ্নটা দেখার পরে তরুণীর মুখখানা চেনা হয়ে গিয়েছিল। পরিচিত জনের ভিড়ে কোনোদিন দেখেছেন বলে মনে পড়ে না। নিজেকেও দেখেছিলেন নিখিলেশ। মোটেই ষাট পেরুনো বৃদ্...

 শুধু যে আমাজন রেইনফরেস্টই আজ ধ্বংসের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রয়েছে, তা নয়। বিশ্বের সবগুলো ট্রপিক্যাল এবং টেম্পারেট রেইনফরেস্টই বর্তমানে বিপর্যস্ত। আমাজন আয়তনে বিশ্বের এক নম্বর বৃহত্তম গ্রীষ্মপ্রধান অরণ্য।  দক্ষিণে রয়েছে ব্রাজিল(আমাজনের ৪০% অরণ্যই ব্রাজিলের সীমান্ত জুড়ে)।উত্তরে গায়ানা হাইল্যাণ্ড। পশ্চিমে অ্যাণ্ডিস পর্বতমালা। পূর্বদিকে রয়েছে অনন্তপ্রসারিত আটলান্টিক মহাসাগর। পৃথিবীর সবচাইতে বেশিসংখ্যক উদ্ভিদ ও জীববৈচিত্র রয়েছে আমাজনের জঙ্গলে। সত্তর দশকের কিছু আগেও এর আয়তন ছিল ৫,৫০০,০০০ স্কয়ার কিলোমিটার।...

এক

শিকাগো বেসড লেখক ডন ইভন, ‍যিনি ২০০৯ সাল থেকে সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে কাজ করছেন, আগষ্টের তৃতীয় সপ্তাহেই টুইট করে জানিয়েছিলেন-‘One of the most important ecosystems on Earth, Amazon Rainforest has been burning for three weeks.' ইভন লিখেছিলেন, তিন সপ্তাহ ধরে আমাজন জ্বলছে অথচ এই নিয়ে মিডিয়ায় কোনো কভারেজ দেখতে পাচ্ছি না। সেই কারণেই সংবাদটা আমায় টুইট করতে হচ্ছে। এরপরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিসহ সংবাদটা ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। আমাজন অরণ্যের লেলিহান অগ্নিকাণ্ড সেই থেকে গোটা বিশ্বে আলোচনার বিষয়বস্তু। ২২শে সেপ্টেম্ব...


 

গণেশ দুয়ারির চল্লিশ বছরের ছেলে ভবেশ দুয়ারি। ভারি সাদাসিধে মানুষ। সবাই জানে, জীবনের বড়
ভাব, জটিল বিষয় কোনোকালেই তার ভাবনায় ঠাঁই পায় না। সংসারে বুড়ো বাপ, চার ছেলেমেয়ে, স্ত্রী
তরণী আর সে। ভবেশ অবস্থাসম্পন্ন কৃষক নয়। মাত্রই দু’ তিন বিঘে পৈতৃক সম্পত্তি আর গোয়ালের তিন
চারটে গরুই সারা বছরের অন্নের সংস্থান। সংসারে নিত্য অভাব। মুখরা বউয়ের চিৎকার হৈহুল্লোড়। তাতে
অবশ্য তার সাদাসরল জীবন উত্তেজনায় কোনোদিনও উতরোল হয়নি। কিন্তু কাল সন্ধের পরে হাট থেকে
সে ঘরে ফিরলো একেবারেই অন্যরকম চেহারা নিয়ে। গাঁয়ের মানুষ তো...

কী ভাবছেন? মার্কিন মুলুকে পাড়ার পূজো অনুষ্ঠিত হয় না?  অন্যদের কথা জানিনে।  তবে আড্ডাবাজ বাঙালি সুদূর প্রবাসে বসেও যে আড্ডা মারতে মারতে দেশীয় কায়দায় পাড়ার আন্তরিক পরিবেশ জমিয়ে তুলতে জানেন, তার প্রমাণ মার্কিন মুলুকের ট্রাই-স্টেট দুর্গা পূজো। মানে ওহাইয়ো, ইণ্ডিয়ানা আর কেন্টাকি অঙ্গরাজ্য মিলে  সাতাশ বছর ধরে যে শারদীয় অনুষ্ঠান উদযাপন করে আসছে, তার কথা বলছি। কখনো সখনো ইলিয়ন আর জর্জিয়া রাজ্য থেকেও গুটিকয়েক পরিবার এতে যোগদান করেন। লোকসমাগম সব মিলিয়ে(ভারতীয় বাঙালি-অবাঙালি এবং সাদা-কৃষ্ণাঙ্গসহ অন্যান্য রে...


 

ভোরের দিকে হঠাৎই জোরে এক পশলা বৃষ্টি হওয়ায় ঘুমটা বেশ গাঢ় হয়ে উঠেছিল নিখিলেশের। আর তখনই আবারও সেই স্বপ্নটা দেখলেন। এক অচেনা তরুণীর হাত ধরে ছোট্ট নদীর তীর ছুঁয়ে ছুটতে ছুটতে সামনের অফুরন্ত সাগরের ওপর দিয়ে ভেসে চলেছেন অবাধে। মাঝখানে আর কোনো ঘটনা নেই। আর কোনো বাক্যালাপ নেই। আর কোনো দৃশ্যপাটও নেই। শুধুই সংক্ষিপ্ত সময়ের ওই ছোট্ট এক টুকরো ঘটনা ছাড়া। তিনবার স্বপ্নটা দেখার পরে তরুণীর মুখখানা চেনা হয়ে গিয়েছিল। পরিচিত জনের ভিড়ে কোনোদিন দেখেছেন বলে মনে পড়ে না। নিজেকেও দেখেছিলেন নিখিলেশ। মোটেই ষাট পেরুনো বৃ...

ইরিনা ওলগা, রোমানিয়ার মেয়ে। তারুণ্য পেরিয়েছে আগেই। জীবনের যাত্রাপথে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছে নানান ঘটনার স্রোতে ভেসে। তাতে আবেগের চেয়ে বুদ্ধির ধার বেশি। কারণ, তার মন দেহসর্বস্ব মানুষের প্রয়োজনের বাইরে যেতে রাজি নয়। আটপৌরে জীবনের উদ্বেলিত ক্ষিধে মেটানোই তার কাছে বেঁচে থাকার মূল মন্ত্র। পাঁচ ইন্দ্রিয়ের বাইরে দাঁড়িয়ে যার অস্তিত্ব অনুভব করার দরকার হয়, তার কথা নিরর্থক ভেবে সময় নষ্ট করার আকুলতা ইরিনার স্বভাবে নেই। আজও সে নতুন ঘটনার স্রোতে ভেসে পার্থিব প্রয়োজনের কথাই ভাবছিল। ভাবছিল, তার নতুন শিকার রবার্ট উ...

বিখ্যাত ইংরেজ জীববিজ্ঞানী চার্লস ডারউইন বলেছিলেন, জীবনে যুদ্ধ করে বেঁচে থাকাই জীবজগতে মৌলিক
প্রয়োজনের শেষ কথা। কিন্তু এই মৌলিক প্রয়োজনের ব্যাখ্যা যেভাবেই করা হোক না কেন, বলা বাহল্য এর
সীমারেখা অন্যসব মানবেতর প্রাণীর ক্ষেত্রে যেভাবে পরিমাপ করা যায় তীক্ষ্ণ বুদ্ধিসম্পন্ন মানুষের পক্ষে সেটা
একেবারেই খাটে না। তার প্রমাণ, মানবসভ্যতায় যুদ্ধের দামামা, যুদ্ধের কারণ জীবনের মৌলিক প্রয়োজনের
বাইরে দাঁড়িয়েই প্রাগৈতিহাসিক কাল থেকে বহাল রয়েছে। সমাজবিজ্ঞানীরা তাই বলেন -

অনিঃশেষ চাহিদার কারণেই অনিঃশেষ যুদ্ধের প্রয়...

Please reload

সাম্প্রতিক পোস্ট
Please reload

Archive
Please reload

A N  O N L I N E  M A G A Z I N E 

Copyright © 2016-2019 Bodh. All rights reserved.

For reprint rights contact: bodhmag@gmail.com

Designed, Developed & Maintained by: Debayan Mukherjee

Contact: +91 98046 04998  |  Mail: questforcreation@gmail.com