কারা যেন সন্তর্পণে হাঁটে

কারা ঘিরে ফেলছে সমূহ উত্থান

ধর্মের ত্রিশূলে বিদ্ধ হচ্ছে নিরপেক্ষতার বর্ম

হাওয়া রুদ্ধ, বদ্ধ পথে দিকচিহ্ন নেই

মানবিক সব মুখ ভেঙে টুকরো

গৈরিক আস্তিনে ঘোরে উন্মত্ত হিংসা

দিকে দিকে জয়ডঙ্কা

উদ্দেশ্যের তীর ছোটে অব্যর্থ নিশানায়

প্রতিবাদী সব স্বর স্তব্ধ করে সংখ্যাধিক্যের উল্লাস

প্রিয় গণতন্ত্র তখন গলার শিরা ফুলিয়ে

ভাষণে ভাষণে মঞ্চ মাত

লাঞ্ছনায় ভরে ওঠে দশদিক দশ মহিমায়

টুঁটিচাপা অবরুদ্ধ আক্রোশ সব যদি

জড়ো হয় ময়দানের পারে, হে শাসক প্রভু,

ক’জন ভারভারাকে নজরবন্দী করবেন? ক’জন !

গল্পের রাজপুত্র ছিলেন রবীন্দ্রনাথ l সুখী রাজপুত্র l সুখ জিনিসটা যদি কাউকে পরিপূর্ণ ভরিয়ে তোলে তো সে রবীন্দ্রনাথ l ঐশ্বর্য প্রতিপত্তি আর সৌভাগ্য-খ্যাতি  তাঁর গলার হার l ছোটবেলা থেকে এ ধারণা অন্তত আমাদের মনে বদ্ধমূল l তাঁকেই আমরা একমাত্র সুখী মানুষ বলে ভাবতে শিখেছি l “সোনার চামচ” হাতে নিয়ে যাঁর জন্ম আমাদের রূপকথার সেই সুখী রাজপুত্রের গল্প আজ আমি বলব না, বলব দুঃখী এক রাজপুত্রের কাহিনী, ওই সুখী মানুষটার আর এক দুঃখময় সত্তার কথা l

   আপাতদৃষ্টিতে সুখ আর খ্যাতি যাঁকে মণিমালার মত বেষ্টন করে ছিল বলে আমাদে...

[ সদ্য প্রয়াত সাহিত্যিক রমাপদ চৌধুরীর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য ]

৯৬ বছর বয়সে চলে গেলেন মধ্যবিত্ত বাঙালী জীবনের নিপুণ রূপকার সাহিত্যিক রমাপদ চৌধুরী l ১৯২২ সালে অবিভক্ত মেদিনীপুর জেলার খড়গপুরে জন্ম গ্রহণ করেন l তিনিই প্রথম লেখক, যিনি ঘোষণা দিয়ে লেখা থেকে অবসর নেন এবং বছরে একটি মাত্র উপন্যাস লিখতেন l লেখার জন্য রূপচাঁদ আর পত্রনবীশ ছদ্মনাম ব্যবহার করতেন l মাত্র ১৮ বছর বয়সে প্রেসিডেন্সি কলেজে পড়ার সময় দুই বন্ধুর অনুরোধে কলেজ কেটে ওয়াই এমসি এ রেস্তরাঁয় বসে লেখেন জীবনের প্রথম গল্প “ট্রাজেডি” l সাপ্তাহিক আজক...

শোনা গেল লাশকাটা ঘরে

     নিয়ে গেছে তারে ;

     কাল রাতে—ফাল্গুনের রাতের আঁধারে

     যখন গিয়েছে ডুবে পঞ্চমীর চাঁদ

     মরিবার হ’লো তার সাধ ;

                                —জীবনানন্দ দাশ

   আত্ম হননের এই সাধ সম্প্রতি আমাকে খুব ভাবাচ্ছে l  সকালে সংবাদপত্রে পাতা ওলটালে বা...

   

৮ থেকে ১০ জুন ২০১৮ পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি ও জীবনানন্দ সভাঘরের দুই মঞ্চে অনুষ্ঠিত হল এপার  ওপার দুই বাংলার এক বর্ণাঢ্য সাহিত্য উৎসব “এপার ওপার”। ৮ জুন শুক্রবার বিকেল ৫টায় উৎসবের সূচনা করেন প্রাবন্ধিক নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ী মহাশয়।  সভাপতিত্ব করেন কবি সুবোধ সরকার l প্রধান অতিথি ছিলেন সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন উৎসব কমিটির সভাপতি মিহির সরকার, যুগ্ম সম্পাদক সৌরভ চন্দ্র ও অর্ঘ্য রায়।

   ভাষানগর, সহজ, সময়ের শব্দ, কবিতা আশ্রম, ঘাসের আড্ডা ও শব্দসাঁকো পত্রিকার উদ...

গতকাল ৩০ মে বুধবার পঃ বঃ বাংলা আকাদেমি জীবনানন্দ সভাঘরে "বই টার্মিনাস" কবির স্পর্ধা সিরিজে ২০ জন কবির কবিতার বই প্রকাশ করল, এক বর্ণাঢ্য সান্ধ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে । মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কিশোর ভারতী পত্রিকার সুযোগ্য সম্পাদক ও সুসাহিত্যিক ত্রিদিবকুমার চট্টোপাধ্যায়, কবি-ঔপন্যাসিক বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, কবি-কথাকার অজিতেশ নাগ, কবি ধনঞ্জয় ঘোষাল। অনুষ্ঠানের স্বাগত ভাষণ দেন যুগসাগ্নিক পত্রিকার সম্পাদক প্রদীপ গুপ্ত মহাশয়। 

   "ক্ষুধার স্তিমিত গদ্যে কবিতার মানচিত্র" শিরোনামে আমার ২য় কাব্যগ্র...

“জিনিয়াস” কথাটার ভাষান্তরে যদি বলি প্রতিভাধর, তাহলে মানতেই হয় প্রতিভা মাত্রেই খেয়ালী l পৃথিবীর বিখ্যাত সব প্রতিভাধর শিল্পী সাহিত্যিক, এমন কি বিজ্ঞানীরাও খেয়ালীপনার চূড়ান্ত পরিচয় দিয়েছেন l আপন আপন সৃষ্টির ক্ষেত্রে তাঁরা যত সিরিয়াস হন না কেন, বাস্তব জীবনচর্যায় ছিলেন একেবারে বেহিসেবি l হিসেব করে সমাজের আর পাঁচজন মানুষের মত বাস্তবানুগ কাজ করা তাঁদের স্বভাববিরুদ্ধ l তাই প্রতিভাধর ব্যক্তির শিরোপাই হল, হয় পাগল, না হলে ছেলেমানুষ l

যেমন ধরুন, একজন বিশ্ববিশ্রুত বিজ্ঞানী জলে ঘড়ি রেখে  হাতে ডিম নিয়ে দাঁড়িয়ে...

এক অন্ধকারে পা রাখি তো
অন্য এক অন্ধকার হাত চেপে ধরে l
এ বলে আমি আগে তো
ও বলে আমি,
কার কাছে দাঁড়াই এখন?
কার হাতে সমূহ বিশ্বাস তুলে দিয়ে
আমি ভারহীন নিরালম্ব হব?

এক নদী বলে এই তো আমি
অন্য নদী তখন ইশারায় ডাকে l
দুই স্রোতে দুই ভিন্নমুখী টান,
সে টানে বিধ্বস্ত আমি
কার কাছে অস্তিত্ব বন্ধক রাখি?

ভাঙনে ভাঙনে ছয়লাপ দেশ
কার কাছে পলি ভিক্ষা করি?

Please reload

সাম্প্রতিক পোস্ট
Please reload

Archive
Please reload

A N  O N L I N E  M A G A Z I N E 

Copyright © 2016-2019 Bodh. All rights reserved.

For reprint rights contact: bodhmag@gmail.com

Designed, Developed & Maintained by: Debayan Mukherjee

Contact: +91 98046 04998  |  Mail: questforcreation@gmail.com