দাঙ্গা হলে কাদের লাভ হয় : দেখাচ্ছে ইতিহাস

১৯৮০ সালে তৎকালীন জনতা পার্টি সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানোর জন্য তাদের কোনো মেম্বাররা আর এস এস এর সদস্য হতে পারবে না বলে  নিষেধাজ্ঞা জারি করে ।তার প্রতিক্রিয়ায় ভারতীয় জনতা পার্টি তৈরি হয় । স্বাধীনতার পরে তারপর এই আশির দশকেই ভারতে সব থেকে বেশি হিন্দু মুসলমান দাঙ্গা হয় । 

গুজরাতে ১৯৮৫ সালে নিম্নবর্ণের মানুষদের রিজারভেশান দেওয়ার প্রতিবাদে বিজেপি প্রতিবাদ শুরু করে । প্রথমে সরকারি অফিস ভাঙচুর করা হয় , তারপর মুসলমানদের দোকান বাড়ি । হিন্দু মুসলিম দাঙ্গা বেঁধে যায় । কংগ্রেসের সরকার পড়ে যায় । ১৯৯০ সালে বিজেপি সমর্থিত সরকার ক্ষমতায় আসে । 

১৯৮৪ সালের লোকসভাতে সারা দেশে প্রার্থী দিয়ে বিজেপি দুটো সীটে জিততে পেরেছিল  । লালকৃষ্ণ আদবানি কে সভাপতি করা হয় । একটা রাষ্ট্রীয় দল যার লক্ষ্য এবং গুরুত্ব দেওয়া উচিত ইকনমিক পলিসি এবং ডেভেলপমেন্টে লালকৃষ্ণ আদবানি তাদের মুখ্য কর্মসূচি তৈরি করেন রামজন্মভুমি আন্দোলনকে  । 

সারা দেশের প্রতিটা রাজ্যে জেলায় সঙ্ঘের সাহায্যে বিজেপি এই আন্দোলন গড়ে তোলে । এই সময়েই মূলত পলিটিকাল পার্টি দ্বারা আয়োজিত রামনবমীতে অস্ত্র নিয়ে শোভাযাত্রার ট্র্যাডিশন শুরু হয় । রামনবমীর মিছিলকে কেন্দ্র করে বিহারের ভাগলপুরে ভয়াবহ রায়ট 

হয় । রামজন্মভুমি আন্দোলন এবং বাবরি মসজিদকে কেন্দ্র করে  উত্তরপ্রদেশের মিরাটে মারাত্মক দাঙ্গা হয় । ১৯৮৯ সালের লোকসভা ইলেকশানে এক লাফে বিজেপি ২ থেকে ৮৪ খানা আসন জেতে । 

বিহারে শূন্য থেকে  বাড়িয়ে আটটি সীট জেতে । গুজরাটে ১০  । উত্তরপ্রদেশে ৮ ।

নির্বাচনে সাফল্যের স্বাদ পেয়ে বিজেপি সর্বশক্তি লাগায় রামমন্দির আন্দলনে । আদবানি ১৯৯০ এ সারা দেশে রথযাত্রা শুরু করে । 

২৫শে সেপ্টেম্বর শুরু হয় ২৩ শে অক্টোবর পর্যন্ত । রাজস্থানের জয়পুর, যোধপুর,  গুজরাটের আহমেদাবাদ , বরোদা এবং হায়দ্রাবাদএ  বড়সড়  দাঙ্গা হয় ।ছশোর বেশি মানুষ মারা যান , অধিকাংশই মুসলিম । পুরো রথ যাত্রার উপলক্ষ্যে ছোট বড় সব মিলিয়ে ১৬৬ টা দাঙ্গা সারা দেশে হয় । 

১৯৯০ সালে বিজেপি রাজস্থানে ভোটে জিতে সরকার গঠন করে । 

১৯৯১ এ সারা দেশের নির্বাচনে বিজেপি আসন বাড়িয়ে এবার ৮৪ থেকে ১২০ টা সীট জেতে ।

রাজীব গান্ধীর হত্যার জন্য মূলত সেন্টিমেন্ট ভোটে কংগ্রেস ভোটে জিতে সরকার গড়তে পারে । ১৯৯১ এ প্রতিষ্ঠিত হওয়ার এক দশক পরেও বিজেপি এর এখনো অবধি অন্য কোনও আন্দোলন নেই , অর্থনৈতিক বা সোশ্যাল কর্মসূচি নেই । তাদের তুরুপের তাস একটাই - রামের মন্দির ।

নির্বাচনের পরেই বিজেপি আবার সারা দেশব্যাপী করসেবকদের নিয়ে রামজন্মভূমি আন্দোলন শুরু করে । অবশেষে ১৯৯২ সালে বাবরি মসজিদ ধ্বংস করতে সক্ষম হয় । 

সারা দেশে হিন্দু মুসলিম রায়ট ছড়িয়ে পড়ে । উত্তরপ্রদেশের কানপুর, মধ্যপ্রদেশে ভোপাল , দিল্লী , মুম্বাই,  গুজরাটের সুরাট , আহমেদাবাদ ভয়াবহ দাঙ্গা হয় । ছোট বড় দাঙ্গা প্রায় সারা দেশ জুড়েই হয়। আমাদের কলকাতাতেও হয় । সব মিলিয়ে দু হাজার মানুষ মারা যায় । সারা দেশে প্রায় সাড়ে তিন থেকে চার বিলিয়ান সরকারী, বেসরকারি সম্পত্তি ক্ষতিগ্রস্ত করা হয় ।

১৯৯২ সালে বিজেপি ইলেকশানে জিতে উত্তর প্রদেশে সরকার গঠন করে । 

১৯৯২ সালে বিজেপি ইলেকশানে জিতে মধ্য প্রদেশে সরকার গঠন করে । 

১৯৯৩ সালে বিজেপি ইলেকশানে জিতে দিল্লীতে সরকার গঠন করে । 

১৯৯৫ সালে বিজেপি ইলেকশানে জিতে গুজরাটে  সরকার গঠন করে । 

১৯৯৫  সালে শিবসেনা  বিজেপি ইলেকশানে জিতে মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন করে । 

১৯৯৬ সালে সারা দেশের নির্বাচনে বিজেপি ১২০ থেকে সীট বাড়িয়ে  এবার ১৬১ টা আসন পায় । 

বিজেপি ১৬ দিনের জন্য কেন্দ্রে অস্থায়ী সরকার তারপর ১৯৯৮ থেকে স্থায়ী সরকার গঠন করে । 

২০০২ তে গুজরাটে মার্চএ দাঙ্গা হয় । অক্টোবরের ইলেকশানে বিপুল ভোটে জেতে । 

রামজন্মভুমির সময়কার দাঙ্গার পরে আবার ২০১৩ তে  উত্তর প্রদেশে সবথেকে বড় দাঙ্গা হয় । এবং দাঙ্গার পরে লোকসভা ভোটে উত্তরপ্রদেশে বিজেপি তার বিরোধীদের পুরো ওয়াশ আউট করে দেয় এবং এরপরে ২০১৭ তে উত্তর প্রদেশে বিপুল ভোটে বিজেপি জিতে সরকার গঠন করে । 

 

এবার আরেকবার উপর থেকে দেখতে দেখতে আসুন । কোথায় কোথায় দাঙ্গা হচ্ছে আর কারা সেখানে তারপর কারা ক্ষমতায় আসছে দেখুন । কোনও রকম প্ররোচনায় পা দেবেন না । হিংসা বিদ্বেষ ছড়াবেন  না । কেও  দাঙ্গার আগুন লাগাতে চাইলে সঙ্গে সঙ্গে  পুলিশকে খবর দিন , সোশাল মিডিয়ায় পোষ্ট করুন ।

Share on Facebook
Share on Twitter
Please reload

জনপ্রিয় পোস্ট

I'm busy working on my blog posts. Watch this space!

Please reload

সাম্প্রতিক পোস্ট
Please reload

A N  O N L I N E  M A G A Z I N E 

Copyright © 2016-2019 Bodh. All rights reserved.

For reprint rights contact: bodhmag@gmail.com

Designed, Developed & Maintained by: Debayan Mukherjee

Contact: +91 98046 04998  |  Mail: questforcreation@gmail.com