পঞ্চায়েত নিয়ে মত মতান্তর

16.05.2018

এবারের সন্ত্রাস অনেক কম

 

পার্থ চট্টোপাধ্যায়

মহাসচিব, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রে

 

২০০৩ সালে ১১১ জন খুন হন। এটা আমরা তুলনা করছি না। এই সংখ্যাটা তুলে ধরছি এই কারণেই যে, মমতার সরকার ও দল সচেষ্ট ছিল বলেই মৃত্যুর সংখ্যা কম হয়েছে।

 

 

মৃত্যুর তথ্য ঠিক নয়

 

সুরজিৎ কর পুরকায়স্থ

ডিজি, রাজ্য পুলিশ

 

গত পঞ্চায়েত  নির্বাচনগুলি খেয়াল করলে দেখা যাবে, এবার পঞ্চায়েত নির্বাচনে মৃত্যু ও হিংসার হার অনেক কম। নির্বাচন সংক্রান্ত কারণে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি ৬ জন অন্যান্য কারণে মারা গেছেন। বিভিন্ন সূত্রে যেভাবে বলা হচ্ছে, রাজ্যে নির্বাচনে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে, তা ঠিক নয়। 

 

 

 

জনগণকে সংঘবদ্ধ করে এগোতে হবে

 

সূর্যকান্ত মিশ্র

রাজ্য সম্পাদক, সিপি আই(এম)

 

তৃণমূলের শাসনে পশ্চিমবঙ্গে মুক্ত এবং অবাধ নির্বাচন হবে অথবা বিজেপি গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে অত্যাচারকে প্রতিহত করতে পারবে, এরকম ভ্রান্ত ধারণা কারুরই হওয়া উচিৎ নয়। এই দুই অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে একমাত্র সংঘবদ্ধ জনগণই অপরাজেয়।

 

 

ভদ্রলোকের রাজনীতি বিপন্ন

 

অরুণাভ ঘোষ​

কংগ্রেস নেতা এবং আইনজীবী

 

নির্বাচনে যে ছোটোলোক কালচার বিধাননগর দিয়ে শুরু হয়েছিল তা পূর্ণতা পেল এই পঞ্চায়েত ভোটে। অনুব্রতর দিদি যদি রাজ্য পরিচালনায় বেশিদিন থাকেন তাহলে ভদ্রলোকের রাজনীতি পশ্চিমবঙ্গ থেকে খুব শিগগিরই উধাও হয়ে যাবে। অশিক্ষিত ছোটোলোকদের রাজ্যে ভদ্রলোকেদের রাজনীতি করার জায়গা আর থাকবে না।

 

 

নেতৃত্ব সাবধান হন

 

কল্যাণ সেনগুপ্ত

সমাজকর্মী

 

কোর্টের রায়ে তৃণমূল নেতৃত্ব এখন স্বস্তিতে। এখন ভেবে দেখার সময় এসেছে, যা এযাবৎ ঘটেছে তার কি আদৌ কোন প্রয়োজন ছিল? একথা সত্যি যে, গোটা ঘটনায় বিরোধী পক্ষের খেলাও কিছু কম নয়। কিন্তু শাসকদলের দায় সর্বাধিক, তাই বিরোধীদের পাতা ফাঁদে পা দিলে তার মূল্য তো চোকাতেই হবে। দলের কোন লিগ্যাল ও মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট নেই অথবা থাকলেও তা যাচ্ছেতাই, এসব তারই ফলশ্রুতি। মনে রাখতে হবে, উন্নয়নের প্রভাব যতই হোক জনমানসে অশান্তির দুষ্প্রভাব কিন্তু বেশি সক্রিয়। এখন সর্বোচ্চ নেতৃত্ব যদি এবিষয়ে সাবধান না হন, ঘটনার স্রোতে গা ভাসিয়ে দেন তাহলে আগামীদিনে ভরাডুবি অনিবার্য। অতএব সাধু সাবধান।

 

 

 

[এই মতামতগুলি একান্তভাবেই মন্তব্যকারীর ব্যক্তিগত। এগুলির দায় পত্রিকা কর্তৃপক্ষ বা সম্পাদকের নয়]

Share on Facebook
Share on Twitter
Please reload

জনপ্রিয় পোস্ট

I'm busy working on my blog posts. Watch this space!

Please reload

সাম্প্রতিক পোস্ট
Please reload

A N  O N L I N E  M A G A Z I N E 

Copyright © 2016-2019 Bodh. All rights reserved.

For reprint rights contact: bodhmag@gmail.com

Designed, Developed & Maintained by: Debayan Mukherjee

Contact: +91 98046 04998  |  Mail: questforcreation@gmail.com